‘রান্নার কাজটিকে সাংসারিক করার প্রয়োজন নেই, একে উপভোগ করুন’ - বললেন শেফ সঞ্জীব কাপুর - Songoti

DEBI SAMMAN ADVERTISEMENT

‘রান্নার কাজটিকে সাংসারিক করার প্রয়োজন নেই, একে উপভোগ করুন’ - বললেন শেফ সঞ্জীব কাপুর

Share This

 কলকাতা: কাজের এক ক্লান্তিকর দিনের পর খাবার প্রস্তুত করার চিন্তা-ভাবনাটি এমন কোনও আদর্শ বিষয় নয় যা আমরা কল্পনা করেছিলাম। কাজ থেকে আনপ্লাগ করার অক্ষমতা ক্লান্তিকে আরও বাড়িয়ে তোলে। এটি ছুড়ি হাতে নিয়ে খাবারকে উপভোগ করা থেকে বিরত করে।

তবে রান্না করা কি এমন কোনও কার্যকলাপ তৈরি করতে পারে যা আপনাকে রিল্যাক্স করতে সাহায্য করে? ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে রান্না করা শেফ সঞ্জীব কাপুর বললেন, 'বেশিরভাগ লোকের কাছে রান্না এমন একটি কাজ যাকে তারা মনে করে, শেষ করা দরকার। আমি মনে করি, আপনি যদি এটির সঙ্গে জড়িত থাকার পদ্ধতিটি`র পরিবর্তন করেন, তাহলে এটি উপভোগ্য হয়ে উঠতে পারে। এর প্রতিটি পদক্ষেপকে পেশি`র শক্তি দ্বারা চালিত না করে পরিবর্তে মেমোরি দ্বারা চালিত করুন। এটিকে এমন কাজ হিসেবে ভাবুন, যা দেহের স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে সাহায্য করে। তাই, সবজি ধোয়া থেকে শুরু করে কাটা, রান্না করা এবং অবশেষে খাবারের পাত্রকে নিমইজি`র মত জেল দিয়ে ধোয়া, এই সমস্ত কাজকে উপভোগ করুন।`



নিমওয়াশ এর মতো প্রাকৃতিক সবজি এবং ফলের ওয়াশ পণ্য এবং নিমইজি-র মতো ডিশ ওয়াশিং জেল দিয়ে রান্নাটিকে উপভোগযোগ্য এবং স্বাচ্ছন্দ্যযুক্ত করা যায়।

 

এখানে শেফ সঞ্জীব কাপুর কীভাবে এই পরামর্শ দিয়েছেন:

 

রান্নাঘরে প্রবেশ করা : যখন আপনি রান্নাঘরে প্রবেশ করবেন, তখন আপনি নিজের মনে হাসুন। পাত্রগুলি টেনে নেবার পরিবর্তে আপনি যে রেসিপিটি তৈরি করেছেন, সেটি নিয়ে ভাবুন এবং খাবার পরে তৈরি করা ডিশটি কীভাবে আপনার মনে অনুভূতি তৈরি করতে পারে সি বিষয় নিয়ে ভাবুন। এর মোটিভেশন হিসেবে যে রেসিপিটি আপনি অনলাইন/বুকমার্ক-এ লিখেছেন, সেটি দেখুন অথবা স্মৃতি থেকে স্মরণ করুন।

 

সামগ্রীটি ধুয়ে ফেলুন : আপনি যে সবজি বা ফল ব্যবহার করবেন, সেগুলিকে নিয়ে নিমওয়াশের মত ন্যাচারাল একশন প্রোডাক্ট দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। এরপর জল দিয়ে ভাল করে ধোয়ার পরে দেখবেন আপনি প্রোডাক্টটি`র মধ্যে সতেজতা পাচ্ছেন কিনা। আপনি যখন চাল বা ডাল ধোবেন, তখন হাত ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে পরিষ্কার করার সময় দেখবেন, তাতে দানা`র টেক্সচারটি অনুভব করতে পারছেন কিনা।

 


তরিতরকারি কাটা : এটিকে সবচেয়ে বিরক্তিকর কাজ বলে মনে হতে পারে, তবে মনের দিক থেকে পরিবর্তন করে নিতে হবে। সামগ্রীগুলিকে পরীক্ষামূলকভাবে বিভিন্নভাবে কেটে নিতে পারেন। বিভিন্ন রঙের তরিতরকারিগুলি পর্যবেক্ষণ করুন এবং আপনি কাটার পর তার রঙের পরিবর্তন লক্ষ করুন।

 

রান্না করা : স্টোভ-এ রাখার জন্য প্যান, পাত্র বা প্রেশার কুকারের ওজন অনুভব করুন। আপনি যখন মসলা ও সবজি গুলিকে তেল/মাখন/ঘি দিয়ে মেখে নেবেন তখন তার ঘ্রান অনুভব করুন। খেয়াল করবেন, এটি ডাল বা তরকারির সঙ্গে যুক্ত হবার সময় কীভাবে আলাদা হয়ে যায়। আপনি আপনার খাবারে লবন যুক্ত করার সঙ্গে সঙ্গে তার স্বাদ নিন এবং আপনার রান্নাঘরে উদ্ভাসিত গন্ধ উপভোগ করুন। আপনি যদি রুটি তৈরি করার সময় দেখেন যে আপনার মন চঞ্চল হয়ে উঠেছে তখন আপনি পর্যবেক্ষণ করুন যে রুটি তৈরির সময় রোলিং পিনের প্রতিটি স্ট্রোক রুটি`র আকারের পরিবর্তন কিভাবে করছে, কিছুটা হলেও অবশ্যই।

 

পরিষ্কার করা: রান্না করার পরে আবর্জনাগুলিকে প্রথমে পরিষ্কার করুন এবং আপনার মসলার বাক্স থেকে তেলের পাত্র, সবগুলি তাদের নিজেদের জায়গায় রাখুন। নিমইজি`র মত ডিশ ওয়াশিং জেল লিকুইড-এ আপনার রান্নার বাসনগুলিকে ২০ মিনিটের মত ভিজিয়ে রাখুন। এরপর অবাক হয়ে লক্ষ্য করুন, কীভাবে এনজাইম টেকনোলজি আপনার রান্নার বাসনগুলিকে সহজেই ধুয়ে ফেলতে সাহায্য করে। একবার হয়ে গেলে, নিজেকে মনে মনে বলুন যে আপনি আপনার রান্নাঘরের জন্য নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশ তৈরি করতে থালা বাসন ভালভাবে পরিষ্কার করেছেন।

 

খাওয়া : এখন আপনি যে খাবারটি রান্না করেছেন, সেটির স্বাদকে উপভোগ করুন। আপনার জিহ্বায় এর প্রতিটি অংশের স্বাদ অনুভব করুন। এইভাবে স্বাদকে উপভোগ করতে করতে খাবারে কামড় বসান।


No comments:

Post a Comment


Debi Samman

Pages