কালবৈশাখীর প্রবল তান্ডব , লন্ডভন্ড এলাকা - Songoti

কালবৈশাখীর প্রবল তান্ডব , লন্ডভন্ড এলাকা

Share This

দেবাশিস ঘোষ , চাঁচল  :  বুধবার রাতে মালদহের চাঁচলে প্রবল বৃষ্টির সঙ্গে আছড়ে পড়ে কালবৈশাখী ঝড়।  দফায় দফায় চলে ঝড়ের প্রবল তাণ্ডব।  জানা গেছে ,  প্রথমে প্রবল বৃষ্টি আর বজ্রপাত শুরু হয়। কিছুক্ষণ পর  প্রবল বেগে ধেয়ে আসে  ঝড়। প্রায় ঘন্টা খানেক ধরে চলে ঝড়ের তান্ডব। তারপর বৃষ্টি খানিকটা কমে। ঝড়ের গতিবেগ  কমে আসে।  কিন্তু মিনিট কুড়ি পর আবার ঝড়ের প্রবল তাণ্ডব শুরু হয় । মাঝরাতেও অব্যাহত থাকে কালবৈশাখীর তাণ্ডব। ঝড়ের তাণ্ডবে মহকুমা সদর চাঁচলের লন্ডভন্ড অবস্থা। ইলেকট্রিকের বেশ কিছু পোল  ঝড়ের ধাক্কায় দুমড়ে মুচড়ে ভেঙে পড়েছে । উপ‌ড়ে গেছে বেশ কিছু পুরনো বটগাছ সহ অন্যান্য গাছ । অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে ৮১ নং জাতীয় সড়ক সহ  অন্যান্য সড়কপথ গুলিও। রাত থেকেই বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে বলে  স্থানীয় সূত্র থেকে জানা গেছে। চাঁচল সহ পার্শ্ববর্তী পাহাড়পুর , গিলাবাড়ি কলিগ্রাম , নুরগঞ্জ সহ গ্রামগুলির টিনের চাল দেওয়া বাড়িগুলির প্রায় একটাও টিনের চাল নেই। ঝড়ের প্রবল তাণ্ডবে চালগুলি উড়ে গিয়েছে । বৃহস্পতিবার দিন সকালে গিয়ে দেখা গেল বাসিন্দারা নিজেরাই গাছগুলি কেটে বাড়ি ঘর পরিষ্কার করছেন। বাসিন্দাদের কথায় ,


 

কালবৈশাখী ঝড়ে প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে । পাহাড়পুরের বাসিন্দা রাজু পান্ডে বলেন , "ফণী ঝড়ের ঘটনার কথা শুনেছি। তবে কালবৈশাখীর এই তাণ্ডব আমার জীবনে প্রথম দেখলাম। এলাকায় প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আমাদের গ্রামে একটা পুরনো বটগাছ ছিল সেটাও ঝড়ে উপড়ে গেছে। ভেঙে পড়েছে বিদ্যুতের পোলগুলি। তার ছিড়ে পড়েছে। বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ আছে। ৮১ নং জাতীয় সড়কের উপরে গাছগুলো ভেঙে পড়ে আছে। এখনও পর্যন্ত পঞ্চায়েত বা ব্লক প্রশাসনের লোকজনের দেখা পাওয়া যায়নি। "চাঁচলের রায়পাড়ার এক গৃহবধূ পুতুল রায় জানালেন , "কালবৈশাখী ঝড়ে বাড়ির টিনের চাল উড়ে গেছে। বাড়ির উপরে ভেঙে পড়েছে গাছ "। আরও জানা গিয়েছে , ঝড়ের দাপটে প্রচুর আম ঝরে পড়েছে । আম চাষিরা ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছেন ।।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here

Pages