কলকাতায় ফিটনেস গুরু ক্রিস গেথিনের জিম - Songoti

কলকাতায় ফিটনেস গুরু ক্রিস গেথিনের জিম

Share This

বার্তা প্রতিবেদন, কলকাতাঃ হৃতিক রোশন, জন আব্রাহাম, রনবীরসিং, অর্জুন কাপুরের মত বলিউড ডিভা দের সুঠাম আকর্ষণীয় চেহারা গঠনের ক্ষেত্রে ক্রিস গেথিন জিম (কেজিজি)-র বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। ফিজিক গ্লোবাল এর অংশ এই কেজিজি শনিবার সল্টলেকে ১১,৬০০ বর্গফুট পরিধি জুড়ে তাদের ফিটনেস সেন্টারের উদ্বোধন করল। ব্রিটিশ ফিটনেস আইকন, অ্যাথলিট, ট্রেনার তথা প্রাক্তন মিস্টার ইউ কে রজার স্নাইপ্স এইদিন জিম উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন।


 বিশ্বের সেরা বডি ট্রান্সফরমেশন কোচ ক্রিস গেথিন এবং ফিজিক গ্লোবাল এর প্রাক্তন সিইও জ্যাগ চিমা-র যৌথ প্রচেষ্টায় ২০১৫ সালে সুঠাম দেহগঠন, ফিটনেস এর নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান কেজিজি গঠিত হয়। বর্তমানে এই সংস্থার পরিষেবা গ্রাহক প্রায় ৭০ মিলিয়ন। দেহসৌষ্ঠব ও ফিটনেস যাদের মূলমন্ত্র তাদের কাছে ক্রিস গেথিন জিম স্বপ্নপূরণের সেরা ঠিকানা। কিছু বলিউড তারকাদের কাছে কেজিজি হল শরীরগঠনের সেরা ঠিকানা।
 মুম্বাই, হায়দ্রাবাদ, বেঙ্গালুরু, জলন্ধর ও মোহালিতে ইতিমধ্যেই কেজিজি র প্রশিক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে। কলকাতায় এটির ষষ্ঠতম কেন্দ্রের উদ্বোধন হল। অতি সম্প্রতি রায়পুর এবং ভোপাল সহ ভারতের প্রায় ১৪ টি শহরে ফিটনেস সেন্টার খুলতে চলেছে কেজিজি। অদূর ভবিষ্যতে সারাদেশে ১৫০ টি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র তৈরীর বিষয়ে আশাবাদী কেজিজি-র অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও ফিজিক গ্লোবাল এর কর্ণধার জ্যাগ চিমা।
 দেহগঠনের সর্বোৎকৃষ্ট পরিকাঠামো, প্রযুক্তি সমৃদ্ধ এই সেন্টারের অভ্যন্তরীণ পরিবেশ ফিটনেস-প্রেমী দের আকর্ষণ করে। ‘এছাড়াও ফিটনেস সংক্রান্ত অতিরিক্ত পরিষেবা সহ যোগব্যায়াম ও শেখানো হয় সকল বয়সের প্রশিক্ষণ গ্রাহকদের’ জানান জ্যাগ চিমা।


 তরুণ হোক বা বৃদ্ধ, পুরুষ বা মহিলা, চাকুরীজীবি বা হোম মেকার সব ধরণের মানুষের কাছে পৌঁছে যাওয়ার লক্ষ্য রয়েছে কেজিজি-র। ক্রিস গেথিনের এই সংস্থা মূলমন্ত্র হল ‘ফিটনেস ফর অল’। তথাকথিত জিম সেন্টার গুলির থেকে পরিষেবার দিক দিয়ে কেজিজি-র কিছু বিশেষত্ব রয়েছে। গ্রাহকদের ব্যাক্তিগত প্রয়োজন গুলিকে এখানে প্রাধান্য দেওয়া হয়। আধুনিক মানের উপযুক্ত প্রশিক্ষক দের মাধ্যমেই যাবতীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। ফলে শিক্ষার্থীরা তাদের কাঙ্খিত ফল পান অতি সহজেই। সংস্থার কর্ণধার ক্রিসের উদ্যোগে নিখুঁতভাবে পরীক্ষা করে উপযোগী যন্ত্র ও পরিকাঠামো নির্বাচন করা হয়।
 বডিবিল্ডার তথা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্পোর্টস থেরাপিস্ট ক্রিস গেথিন ‘ড্রামাটিক ট্রান্সফরমেশন প্রিন্সিপ্যাল’ নামক যুগান্তকারী ট্রেনিং থিয়োরির জনক। এই থিয়োতিটি ডিটিপি নামে পরিচিত, যার মাধ্যমে সারাবিশ্বে প্রায় লক্ষাধিক গ্রাহক বডি ট্রান্সফরমেশনের সুফল পাচ্ছেন।

No comments:

Post a Comment

Pages