বাংলা বর্ষবরনের এক অনন্য বৈশাখী সন্ধ্যা - Songoti

DEBI SAMMAN ADVERTISEMENT

বাংলা বর্ষবরনের এক অনন্য বৈশাখী সন্ধ্যা

Share This
বাংলার বর্ষবরন দক্ষিন দিনাজপুরে

পল মৈত্র,দক্ষিন দিনাজপুরঃ  বাংলা বর্ষবরনের ১৪২৫ কে স্বাগত জানিয়ে এক অনন্য বৈশাখী সন্ধ্যা পালন করলো গঙ্গারামপুর সুদীপ ডান্স অ্যাকাডেমি। সোমবার বিকেলে শতাধিক ঢাকের বাদ্যির তালে সুদীপ ডান্স অ্যাকাডেমির ছাত্রী ও অভিভাবকরা মিলে এক বিশাল বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা পরিক্রম সমগ্র গঙ্গারামপুর শহর জুড়ে। এরপর গঙ্গারামপুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন ৫১২ নং জাতীয় সড়কের পাশে উজ্বল নানান রং এর আলোর রোশনাই আলোকিত মঞ্চে সন্ধ্যার সময় বাংলা লোকগীতির দ্বারা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন এলাকার শিল্পীরা। উপস্থিত ছিলেন জেলার সুপরিচিত বিশিষ্ট সাহিত্যিক তথা সমাজসেবী গোবিন্দ কুমার তালুকদার, লোকগানের বিশিষ্ট শিল্পী অরিন্দম সিংহ(রানা), মহকুমা ক্রীড়া সভাপতি বিভূতিভূষণ চক্রবর্তী সহ অন্যান্য বিশিষ্টরা। এদিন গোবিন্দ বাবু তার কিছু কবিতা পাঠ করে শোনান উপস্থিত দর্শক দর্শকমণ্ডলীদের। অন্যদিকে অরিন্দম সিংহের লোকগান লোকগানের দ্বারা দর্শকদের মন ছুয়ে যায় নষ্টালজিক হয়ে পড়ে বাংলা মাটির গানে। এরপর সুদীপ ডান্স অ্যাকাডেমির ছাত্র ছাত্রীরা উজ্বলিত মঞ্চে তাদের দুধর্ষ নাচ প্রদর্শন করে যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ও নজরকাড়া ছিল কচিকাঁচাদের নাচ ও তাদের অভিভাবকদের নাচ। যা সত্যি উপস্থিত দর্শকদের মন ছুয়ে যায়। এবিষয়ে সুদীপ ডান্স অ্যাকাডেমির কর্নধার সুদীপ সিংহ মতো এবারও নানারকম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাংলা বর্ষবরনের বৈশাখী সন্ধ্যা পালন করলাম উপস্থিত হাজার দর্শক আর ছাত্রী ছাত্রীদের দুর্দান্ত নাচ দেখে আমি খুব গর্বিত পাশাপাশি দারুন অভিজ্ঞতা হলো। প্রতিবছর নাচের নানান দিক তুলে ধরে সমাজে একটা বার্তা দিতে চাই এবারো তা করেছি ভবিষ্যতে আরো বড়ো নৃত্যানুষ্ঠান করতে চাই যার জন্য দরকার আপনাদের সহযোগীতা ও আশির্বাদ। এদিন বেশ রাতে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘটে। জাতীয় সড়কের পাশে অনুষ্ঠানটি চলায় প্রচুর মানুষ তা দেখতে ভীড় জমান কোনপ্রকারের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে উপস্থিত ছিল গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ। এদিন সুদীপ ডান্স অ্যাকাডেমির নৃত্যানুষ্ঠান দেখতে আসা দর্শকদের ভীড় ছিল চোখে পড়ার মতন।।



No comments:

Post a Comment


Debi Samman

Pages