অক্সফর্ড বুকস্টোর এবং প্রভা খৈতান ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে এপিজে বাংলা সাহিত্য উৎসব কলকাতায় - Songoti

অক্সফর্ড বুকস্টোর এবং প্রভা খৈতান ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে এপিজে বাংলা সাহিত্য উৎসব কলকাতায়

Share This


সোহম মুখার্জী, কলকাতাঃ বাংলা সাহিত্যের বৃহত্তম বার্ষিক আড্ডা-আসর, এপিজে বাংলা সাহিত্য উৎসবের এবার সপ্তম বর্ষ। অক্সফর্ড বুকস্টোর এবং প্রভা খৈতান ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে, কোভিড বিধি মেনে এবারের অনুষ্ঠান দুদিন অনলাইনে আর একদিন অফলাইনে হল। শেষ দিনের অফলাইন আলোচনা পার্ক স্ট্রিটের অক্সফোর্ড বুকস্টোরে


 অনুষ্ঠিত হল। এপিজে বাংলা সাহিত্য উৎসবের এই আলোচনাগুলো তাদের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে সারা দুনিয়ার সাহিত্যপ্রেমী বাঙালির কাছে পৌঁছে গেছে। এবারের সাহিত্য উৎসবের বিভিন্ন আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাহিত্যিকরা, যেমন নৃসিংহপ্রসাদ ভাদুড়ী, বাণী বসু, সুবোধ সরকার,হিমাদ্রিকিশোর দাশগুপ্ত, সৈকত মুখোপাধ্যায়, বিনোদ ঘোষাল, রাজা ভট্টাচার্য প্রমুখ এবং অন্যান্য সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রের উজ্জ্বল ব্যক্তিত্বরা, যেমন শুভাপ্রসন্ন, কমলেশ্বর মুখার্জী, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, অনিন্দ্য জানা, প্রমুখ। এবারের সাহিত্য উৎসবের কিউরেটর ছিলেন রয় চৌধুরী এবং পরামর্শদাতা ছিলেন রূপা মজুমদার।

এপিজে বাংলা সাহিত্য উৎসবের সপ্তম সংস্করণ-এর ব্যাপারে বলতে গিয়ে অক্সফোর্ড বুকস্টোরের সিইও, এবং সাহিত্য উৎসবের পরিচালক স্বাগত সেনগুপ্ত বললেন, "অতিমারীর মধ্যেও এই নিয়ে পরপর দুবছর আমরা এত সাজানো-গোছানো সাহিত্য উৎসব পেলাম, যা অনলাইন এবং অফলাইন, দুভাবেই হয়েছে। এবারের উৎসবে মোট ১৬টা বিভিন্ন স্বাদের আলোচনা ছিল, যার মধ্যে শঙ্খ ঘোষ, বুদ্ধদেব গুহ এবং অনীশ দেব স্মরণে বিশেষ আলোচনাও ছিল। কল্পবিজ্ঞান, বাংলা কমিক্স, অডিও স্টোরিবুক, সিনেমা, সংহবাদিকতা, সিনেমা এবং অবশ্যই সাহিত্যকেন্দ্রিক বিভিন্ন বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে। অতিমারীর নিয়মবিধি মেনেই অক্সফোর্ড বুকস্টোরে বিভিন্ন আলোচনাগুলো সাজানো হয়েছে। তিন দিনের এই উৎসবের সব আলোচনাই অবশ্য আলাদা করে আমাদের নিজস্ব সোশ্যল মিডিয়ার মাধ্যমে সারা দুনিয়ার সাহিত্যপ্রেমী বাঙালির কাছে পৌঁছে গেছে।

No comments:

Post a Comment

Pages