ওড়িশা ভিত্তিক ইভি ইন্ডিয়া স্টার্টআপ পশ্চিমবঙ্গে প্রযুক্তি ও পরিবেশের মধ্যে যথার্থ ভাবে ভারসাম্য রেখে চলেছে - Songoti

DEBI SAMMAN ADVERTISEMENT

ওড়িশা ভিত্তিক ইভি ইন্ডিয়া স্টার্টআপ পশ্চিমবঙ্গে প্রযুক্তি ও পরিবেশের মধ্যে যথার্থ ভাবে ভারসাম্য রেখে চলেছে

Share This

 

বৈদ্যুতিক দ্বিচক্রযান উৎপাদনকারী সংস্থা, ইভি ইন্ডিয়া, যার সদর দপ্তর ভুবনেশ্বরে, তারা পশ্চিমবঙ্গে এক নম্বর অটোমোবাইল সংস্থা হবার প্রত্যাশায় নজর দিয়েছে। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে 10টি ডিলারশিপ এবং 12টি আউটলেটের নেটওয়ার্ক রয়েছে।

 

ইভি ইন্ডিয়ার সহ-প্রতিষ্ঠাতা হর্ষবর্ধন দিদওয়ানিয়া বলেন, “আমরা অদূর ভবিষ্যতে বৈদ্যুতিক স্কুটারের অন্যতম অগ্রণী নির্মাতা হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করার অপেক্ষায় রয়েছি। বৈদ্যুতিক ভেহিকেল-এর বিক্রি 20% বৃদ্ধি পেয়েছে এবং 2019-20 সালে বিক্রি হওয়া 1.56 লক্ষ বৈদ্যুতিক ভেহিকেল-এর গুলির মধ্যে 1.52 লক্ষ ছিল বৈদ্যুতিক স্কুটার।“

 

সাসটেইনেবল ট্রান্সপোর্ট-এর বাজারে এই আশ্চর্যজনক বৃদ্ধির বিষয়ে হর্ষবর্ধন দিদওয়ানিয়া বলেন, 'ইভি ইন্ডিয়া সমগ্র ভারতে 50টিরও বেশি লোকেশনে অবিশ্বাস্য গতিতে বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে।"

 

হর্ষবর্ধনের মতে, ইভি ইন্ডিয়া তার স্কুটার গুলি স্টাইল, কমফোর্ট এবং অ্যাডাপ্টএবিলিটি'র বৈশিষ্ট্য নিয়ে সরবরাহ করে এবং এই ভেইকেলগুলি ভারতের রাস্তার উপযোগী করে তৈরি করা হয়েছে। দূষণ ও বিশ্ব উষ্ণায়ন বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে ই ভি ইন্ডিয়া পরিবেশগত উদ্বেগজনিত কারণ এর পরিপ্রেক্ষিতে বৈদ্যুতিক মবিলিটি'র ভাবনা নিয়ে আপনাদের সামনে সাসটেইনেবল, ইকো ফ্রেন্ডলি, নিরাপদ ও পরিচ্ছন্ন ইলেকট্রিক স্কুটার নিয়ে এসেছে।  ভারতের সবচেয়ে বেশি দ্বিচক্রযান রয়েছে এবং পশ্চিমবঙ্গে বৈদ্যুতিক যানবাহনের বিক্রি বৃদ্ধি সরাসরি একটি পরিচ্ছন্ন ও দূষণমুক্ত পরিবেশের রাজ্যে অবদান রাখবে।

 

পশ্চিমবঙ্গে ইভি ইন্ডিয়ার এটরিও, আহাবা, উইন্ড, ইওর, 4ইউ এবং জেনিয়া- এই সমস্ত মডেল গুলিই পাওয়া যায় এবং তাদের দুর্দান্ত  প্রয়াসের মাধ্যমে তাদের স্কুটারের বিভিন্ন রেঞ্জ এখানে সরবরাহ করে। কেবলমাত্র পরিবেশ দূষণই নয়, তার ভবিষ্যত প্রযুক্তি দিয়ে হর্ষবর্ধন তৈরি করছেন শব্দহীন যানবাহন এবং ধীরে ধীরে পরিবেশগত বিষয় ও টেকনোলজির সংমিশ্রণ ঘটিয়ে চলেছেন তিনি। প্রবর্তনের ঠিক এক বছরের মধ্যে ইভি ইন্ডিয়া তার ইভি স্কুটারে একটি এন্টি- থেপ্ট লক, ইউএসবি পোর্ট, কি-লেস এন্ট্রি, জিও- ট্যাগিং এবং আইওটি সক্ষম স্কুটার এর পাশাপাশি 5 বছরের ওয়ারেন্টি যুক্ত করেছে।

 

হর্ষবর্ধন দিদওয়ানিয়া বলেন, ”ইভি ইন্ডিয়া বৈদ্যুতিক স্কুটারগুলি উন্নত লিথিয়াম- আয়ন ব্যাটারী দ্বারা চালিত হয় এবং এই ব্যাটারি পুরোপুরি চার্জ করতে তিন থেকে চার ঘণ্টা সময় লাগে। স্কুটারগুলি একবার পুরো চার্জে 75 কিলোমিটারেরও বেশি পথ যেতে পারে। এর ফলে আপনি নির্বিঘ্নে ড্রাইভিং অভিজ্ঞতা পেতে পারেন।“

 




হর্ষবর্ধন 2019 সালে ইভি ইন্ডিয়া লঞ্চ করেছিলেন। হর্ষবর্ধন বলেন, ইভি ইন্ডিয়া সরকারি ই- মার্কেটপ্লেস, স্টার্ট আপ ইন্ডিয়া এবং স্টার্ট আপ ওড়িশা'র অধীনে একটি স্বীকৃত স্টার্ট আপ। পশ্চিমবঙ্গের বাজারগুলিতে ইভি'র একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ রয়েছে এবং এই রাজ্যের সমস্ত জেলার 25 টি ডিলার এর সঙ্গে ভলিউম ও মার্কেট শেয়ার এর দিক দিয়ে এক নম্বর অটোমোবাইল সংস্থা হবার দিকে মনোনিবেশ করছেন। বর্তমানে এর প্রধান ডিলাররা হল কলকাতা, ব্যান্ডেল (হুগলি), খড়গপুর, চাকদহ, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, নিমতা, আলিপুরদুয়ার ও শিলিগুড়ি'র। সাব ডিলাররা হল শিমুরালি, শান্তিপুর, চুয়াডাঙ্গা, সোনারপুর, বারুইপুর, সোদপুর বেলেঘাটা, দাদারপুর, বিমানবন্দর 2 নম্বর গেট, চুঁচুড়া, আন্দুল এবং খিদিরপুরের। তাদের 'টেস্ট ড্রাইভ বুকিং' উদ্যোগ এবং দুর্দান্ত পরিষেবা দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে শীর্ষস্থানীয় ইভি কোম্পানি হবার সম্ভাবনা রয়েছে।

No comments:

Post a Comment


Debi Samman

Pages