সিমুলেশন সফটওয়্যারের মাধ্যমে ইঞ্জিনিয়ারিং-এ প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস করাবে জেআইএস গোষ্ঠী - Songoti

সিমুলেশন সফটওয়্যারের মাধ্যমে ইঞ্জিনিয়ারিং-এ প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস করাবে জেআইএস গোষ্ঠী

Share This
কলকাতা : করোনা আবহে পরিবর্তিত পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই সিমুলেশন সফটওয়্যারের মাধ্যমে সম্পূর্ণ অনলাইনে ইঞ্জিনিয়ারিং-এর প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস করাবে জেআইএস শিক্ষা গোষ্ঠীর ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজগুলি। যা কিনা মূলত ডায়াগ্রাম এবং সূত্রের সেটসহ একটি বাস্তব ঘটনাকে সম্পূর্ণ অনলাইনে উপস্থাপনের প্রক্রিয়া। আর কম্পিউটার সাইন্স এবং বায়োমেডিকেল-এর প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাসের জন্য ব্যবহার করা হবে ভার্চুয়াল মোড অর্থাৎ ল্যাবরেটরিতে শিক্ষকরা অনলাইনে এই ক্লাসগুলি নেবেন আর তার পুরো রেকর্ডিংটা পেন ড্রাইভে করে ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠানো হবে কিংবা ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যাবে। এর ফলে ছাত্র-ছাত্রীদের ইঞ্জিনিয়ারিং-এ প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস করতে কোনও সমস্যা হবে না বলে জানিয়েছেন জেআইএস গোষ্ঠীর ম্যানেজিং ডিরেক্টর তরণজিৎ সিং।


করোনা মহামারী এবং লকডাউন সমস্ত ক্ষেত্রের মানুষ কে শেখাচ্ছে পুরোনো অনেক অভ্যেস বদলে নতুন ভাবে জীবনকে বাঁচতে। গত বৃহস্পতিবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলের প্রকাশিত হওয়ার পর বহু ছাত্র-ছাত্রীই কলেজে ভর্তি ও ক্লাস করার বিষয়ে চিন্তিত। এই পরিস্থিতিতে জেআইএস গোষ্ঠীর এই অভিনব উদ্যোগ বহু ছাত্র-ছাত্রীকেই আশ্বস্ত করবে বলে আশা রাখছেন কর্তৃপক্ষ।

জেআইএস গোষ্ঠীর ম্যানেজিং ডিরেক্টর তরণজিৎ সিং আরও জানালেন, "আমরা ইতিমধ্যেই অনেক অনলাইন ক্লাস করেছি। আমাদের শিক্ষকরা যথেষ্ট দক্ষ অনলাইন ক্লাস করার জন্য। আজ এই প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস নিয়েও বাস্তবিক সমস্যার সমাধান আমরা আনলাম। 'নো-কন্টাক্ট' পদ্ধতির মাধ্যমে অনলাইনে ভর্তির প্রক্রিয়া আমরা আগে থেকেই শুরু করেছিলাম। ফলে ফর্ম লেখা থেকে শুরু করে পেমেন্ট অবধি সবটাই অনলাইন হবে। আসলে এই পরিবর্তিত পরিস্থিতির সঙ্গে বর্তমানে আমাদের মানিয়ে চলতে হবে।" প্রসঙ্গত উল্লেখ্য তরণজিৎ সিং পশ্চিমবঙ্গ এসোসিয়েশন অফ প্রফেশনাল একাডেমিক ইনস্টিটিউশন্স (আপাই)-এরও সভাপতি।

অনলাইন ভর্তির বিষয়ে জেআইএস শিক্ষা গোষ্ঠীর তরফে জানানো হয়েছে যে ছাত্র-ছাত্রীরা অনলাইনে তাদের মার্কশিট আপলোড করতে পারবে তারপরে যোগ্যতা অনুযায়ী প্রার্থী বাছাই করা হবে এবং নেওয়া হবে অনলাইন কাউন্সেলিং। বাছাইপর্ব সম্পূর্ণ হলে তাদেরকে ই-পেমেন্ট পদ্ধতি বিস্তারিত জানানো হবে। বিগত বছরগুলিতে ছাত্র-ছাত্রীদের কেবলমাত্র অনলাইনে ফর্ম জমা করতে হতো কিন্তু বাকি সমস্ত কাজই হতো অফলাইনে।এসোসিয়েশন অফ মাইনোরিটি প্রফেশনাল একাডেমিক ইনস্টিটিউটস (আমপাই)-র জন্য জেআইএস শিক্ষা গোষ্ঠী স্থান সংরক্ষিত রাখার ব্যবস্থাও রেখেছে। 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here

Pages